২৪ ঘণ্টার মধ্যে সিটিসেল চালুর নির্দেশ

বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের তরঙ্গ বরাদ্দের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগ বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। সিটিসেলের আবেদন গ্রহণ করে পরবর্তী আদেশের জন্য ৬ আগস্ট দিন ধার্য করা হয়েছে (এপ্লিকেশন এলাউড ফর ফারদার অর্ডার অন ৬ আগস্ট)।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) তরঙ্গ বরাদ্দ সংক্রান্ত নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে সিটিসেলের লাইসেন্স পুনর্বহালের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালতে সিটিসেলের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ ও অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম।

গত বছরের ৩ নভেম্বর ১০০ কোটি টাকা পরিশোধের শর্তে মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের তরঙ্গ বরাদ্দ অবিলম্বে খুলে দেয়ার নির্দেশ দেয় আপিল বিভাগ। আদালত বলেন, ১৯ নভেম্বরের মধ্যে এই ১০০ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টাকা পরিশোধ করে সিটিসেল কর্তৃপক্ষ। আদালত একইসঙ্গে সিটিসেলের কাছে বিটিআরসির পাওনা নিয়ে বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরীর নেতৃত্বে তিন সদস্যের কমিটি গঠনেরও নির্দেশ দেয়। এই কমিটিতে বিটিআরসির স্পেকট্রাম বা তরঙ্গ বরাদ্দবিষয়ক পরিচালক ও যুগ্ম সচিব পর্যায়ের একজন কর্মকর্তাকে সদস্য রাখতে বলা হয়। ওই কমিটিকে এক মাসের মধ্যে বিরোধ নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে। বকেয়া টাকা পরিশোধ করা হয়নি এ অভিযোগে গত ২০ অক্টোবর সিটিসেলের কার্যক্রম স্থগিত করে দেয় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। বিটিআরসির এ সিদ্ধান্ত স্থগিত চেয়ে ২৫ নভেম্বর আপিল বিভাগে আবেদন করে সিটিসেল। এছাড়াও সিটিলের লাইসেন্স সোমবার বাতিলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় বিটিআরসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.