চাটখিল সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে ব্যাপক দুর্নীতি

চাটখিল: নোয়াখালী জেলার চাটখিল সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে ব্যাপক দুর্নীতি, অনিয়ম ও জাল দলিল সৃষ্টির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে সামাজিক বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি ও মামলার পরিমান বেড়ে যাচ্ছে এবং সরকার প্রতি বছর লাখ লাখ টাকা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাছাড়া এ অফিসে কর্মরত স্থানীয়দের দৌরাত্মে অতিষ্ঠ অফিসের মোহরাব ও রেজিষ্ট্রি করতে আসা লোকজন।

জানা গেছে, এ অফিসে সপ্তাহে মঙ্গলবার এবং বুধবার দলিল রেজিষ্ট্রি হয়। এখানে কর্মরত প্রধান অফিস সহকারী রাখাল চন্দ্র। তিনি মোহরাব থেকে প্রধান অফিস সহকারী হয়েছেন। চতুর্থ শ্রেনীতে মাষ্টার রুলে কর্মরত ফরিদউদ্দিন এ দুজনের বাড়ি চাটখিল পৌরসভায়। এরা দুজনেই এ অফিস পরিচালনা করেন। মঙ্গলবার দুপুরে সরজমিনে গিয়ে দেখা রাখাল চন্দ্রের টেবিলে প্রচুর ভীড়। তিনি দলিল লিখকদের নিকট থেকে নির্ধারিত হারে টাকা নিয়ে রেজিষ্ট্রির জন্য পাঠাচ্ছেন সাব-রেজিষ্টারের কাছে। রাখালের রুড় আচরণ ও লোকজনকে হুমকি প্রদান এবং তার কথা মতো টাকা না দিলে রেজিষ্ট্রি না করে লোকজনকে গাল মন্দ দেয়া হচ্ছে। স্থানীয় এবং দীর্ঘদিন থেকে তিনি এখানে কর্মরত থাকায় সেই এখন এই অফিসের কর্ণধার। ফরিদউদ্দিন এর বিরুদ্ধে লোকজনের সাথে অসাদাচারন, হেনেস্তা করে অফিস থেকে বের করে দেওয়াসহ অনেক অভিযোগ। রাখাল এবং ফরিদ স্থানীয় হওয়ায় তারা সরকারের নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ব্যাপক দুর্নীতি ও অন্যায় করে, জালদলিল সৃষ্টি করে অর্থ আদায় করে আসছেন। এখানে খতিয়ান জালিয়াতির করে জমির মালিকের নাম জমির ধরন ও দাগ নম্বর পরিবর্তন করে অহরহ দলিল সৃষ্টি হচ্ছে। দুর্নীতি ও অনিয়মের জন্য আদায় করা অর্থের সিংহবাগ সাব-রেজিষ্ট্রারকে দেওয়ার কথিত অভিযোগ রয়েছে।

এখানে মাঝে মধ্যে জালদলিল সৃষ্টির দু-একটি ঘটনা ধরা পড়লেও দলিল লেখকদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। দলিল লিখক সালে আহম্মেদ বাবলু (সনদ নং-৩১৫৭)কে জাল দলিল করার সময় কয়েকবার ধরা হলেও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এ ব্যাপারে সাব-রেজিষ্ট্রার গিয়াসউদ্দিন এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি খতিয়ান জালিয়াতির মাধ্যমে জাল দলিল সৃষ্টির ঘটনা সত্যতা স্বীকার করলেও তার বিরুদ্ধে আনিত অর্থ আদায় সহ দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করেন। তবে তিনি প্রধান অফিস সহকারী রাখাল চন্দ্র এবং মাষ্টার রুলে কর্মরত চতুর্থ শ্রেনীর কর্মচারী ফরিদউদ্দিন এর ব্যাপারে কোন মন্তব্য করেন নি।

প্রতিবেদক/এমআরআর/২২ আগস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.