জাতীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতায় সেরা নোয়াখালীর নিজামুদ্দীন

জাতীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতা (চূড়ান্ত পর্ব)-২০১৭ এ সেরা পনেরতে  ১৩ তম স্থান পেলেন নোয়াখালী সেনবাগ  উপজেলার ঢালুয়া গ্রামের কৃতি সন্তান ও ফেনী সরকারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার নিজামুদ্দীন । গত মার্চে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত ২৩০০ প্রতিযোগির মধ্যে গত জুলাই মাসে সেরা ৩৫জন শিক্ষক নির্বাচন করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) কর্তৃপক্ষ। বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচিত ৩৫ জন শিক্ষকদের নিয়ে গত ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর দুই দিনব্যাপী চূড়ান্ত পর্বের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা টিচার্সে ট্রেনিং কলেজে।

শনিবার বিকেলে ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ই-লার্ণিং স্পেশালিস্ট প্রফেসর ফারুক আহমেদ। সারাদেশের নির্বাচিত ৩৫জন শিক্ষক থেকে বিচারকদের সিদ্ধান্তে ‘সেরা ১৫ জন’ প্রতিযোগির নাম ঘোষণা করা হয়। এতে ১৩ তম স্থান   লাভ করেন ফেনী সরকারী টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার নিজামুদ্দীন ।  মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শাখার ৩৫জন শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়াও শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার নিজামুদ্দীন গত জুলাই মাসে ফেনী টিটিসিতে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতায় ৩য় স্থান অধিকার করেন এবং ফেনী নোয়াখালী লক্ষীপুর ও কুমিল্লা জেলার মধ্যে প্রথমস্থান অর্জন করেন।

গত বছরগুলোর ধারাবাহিকতায় শিক্ষামন্ত্রী বা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মহোদয়ের মাধ্যমে আগামী ডিসেম্বর মাসে বিজয়ী ৩৫ জনকে পুরস্কৃত করা হবে বলে জানিয়েছেন ই-লার্ণিং স্পেশালিস্ট প্রফেসর ফারুক আহমেদ।

উল্লেখ্য গুণি এ শিক্ষক কম্পিউটার সাইন্সে বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং, ও লন্ডনে আইসিটি বিষয়ক এসিপি কোর্স সমাপ্ত করেন। এবং দীর্ঘদিন যাবৎ মাইক্রোসফট এডুকেশন সিস্টেমের সাথে কাজ করেন এবং সফলতার স্মারক হিসেবে MIE Surface Expert, MIE Trainer, MIE Master Trainer, Certified Microsoft innovative educator, Microsoft innovative educator Expert 2017-2018 সহ মাইক্রোসফট কর্পোরেশন কর্তক ৮ টি আর্ন্তজার্তিক অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। এছাড়াও a2i (প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ) কর্তৃক আয়োজিত ডিজিটাল উদ্ভাবনী ও জেলা ব্র্যান্ডিং মেলা-২০১৭” তে ফেনী টিএসসির প্রতিযোগী টিমের সুপারভাইজার হিসেবে অংশগ্রহণ করে “স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে জালানী বিহীন বিদ্যুত উৎপাদন ও সরবরাহকরণ” প্রজেক্ট উপস্থাপন করে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় ফেনী জেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমুহের মধ্যে প্রথমস্থান অর্জনকরে প্রতিষ্ঠানের পক্ষথেকে ডিসি মহোদয় থেকে ক্রেস্ট গ্রহণ করেন। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আমন্ত্রণে আইসিটি বিষয়ক ইনহাউজ ট্রেনিং পরিচালনা করে আসছেন।

জানতে চাইলে ইঞ্জিনিয়ার নিজামুদ্দীন বলেন, এ বছর ৬৪ টি কারিগরি স্কুল ও কলেজ থেকে একমাত্র ব্যক্তি হিসেবে জাতীয় সেরা পনেরোতে স্থান পাওয়ায় আমি আনন্দিত। আমার এ অর্জনের পেছনে আমার সহকর্মী, প্রিন্সিপাল মহোদয়, শিক্ষকবৃন্দ ও আমার পরিবারের আন্তরিকতা  ভালোবাসা এবং আমার প্রাণপ্রিয় বাবার দোয়া ও আন্তরিকতা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.