দাগনভূঞায় যৌতুকের দাবীতে অন্ত:স্বত্ত্বা স্ত্রীকে নির্যাতন

দাগনভূঞা: দাগনভূঞায় ১ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবীতে অন্ত:স্বত্ত্বা স্ত্রী রাশেদা আক্তার শিউলিকে (৩৫) নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত রবিবার সকালে উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ গ্রামের রেজু মিয়ার নতুন বাড়ীতে।

পুলিশ ও ভূক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ গ্রামের মৃত মমিনুল হকের ছেলে রাজমিস্ত্রী আশরাফুল ইসলাম মহিফুলের সঙ্গে একই এলাকার রাশেদা আক্তার শিউলির বিয়ে হয় ২০০০ সালের ১৬ই মে তারিখে। বিয়ের পর উভয় পরিবারে সাবিনা ইয়াছমিন (১৬) নামে ও বিবি রোজিনা (১০) নামে দুই কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। বর্তমানে সাত মাসের অন্ত:স্বত্ত্বা শিউলিকে ওইদিন সকালে এলোপাতাড়ি নাকে, মুখে এবং তলপেটে লাথি মেরে রক্তাক্ত জখম করে যৌতুক লোভী পাষন্ড স্বামী। আহতের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় দাগনভূঞা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় আহত বাদী হয়ে পাষন্ড স্বামীকে আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। কান্না জড়িত কন্ঠে বাদী জানান, যৌতুকের দাবীতে প্রায় সময় আমাকে নির্যাতন করত। ওইদিন ১ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করে না দেয়ায় আমাকে গুরুতর আহত করে।

থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আবুল কালাম আজাদ অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ প্রেরণ করা হয়েছে। সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেনী প্রতিনিধি/নোয়াখালীনিউজ/এসইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published.