ফুলগাজী ও পরশুরামে আরো ৭ গ্রাম প্লাবিত

ফেনী: টানা বৃষ্টি ও ভারতীয় পাহাড়ি ঢল ফেনীর সীমান্তবর্তী ফুলগাজী ও পরশুরাম উপজেলার আরো পাঁচ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। দুই উপজেলার রাস্তা-ঘাট, স্কুল-কলেজ, ফসলী জমিসহ ৪৪ হেক্টর মাছের ঘের-পুকুরে পানি প্রবেশ করে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এতে পানিবন্ধি হয়ে পড়েছে ২৫ গ্রামের অর্ধলক্ষাধিক মানুষ।

গত বৃহস্পতিবার থেকে টানা বৃষ্টি ও ভারতীয় পাহাড়ী ঢলে ফেনীর পরশুরাম-ফুলগাজী এলাকার মুহুরী, কহুয়া ও সিলোনিয়া নদীর ৮টি স্থানে বাঁধ ভেঙ্গে পানি প্রবেশ করে। এতে ফুলগাজীর দেড়পাড়া, নিলক্ষী, বদরপুর, ঘোসাইপুর, শ্রীপুর, নোয়াপুর, করইয়া, শাহাপাড়া, ঘনিয়োমোড়া, বাসুরা গ্রাম গুলো পানির নিচে রয়েছে। একই ভাবে পরশুরাম উপজেলার মির্জানগর, শালধর, চিথলিয়া, বক্সমাহমুদ এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, ফসলি জমি, খামার, ডুবে গেছে শীতকালিন সবজিসহ ক্ষেতের বিভিন্ন জাতের ফসল।
সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বন্যার পানি নতুন করে ফুলগাজী উপজেলার মুন্সিরহাট বাজার, দরবারপুর, শ্রীচন্দ্রপুর, উত্তর শ্রী চন্দ্রপুর, করৈয়া, দৌলতপুর, গাবতলা, মনতলা গ্রামে নতুন করে প্লাবিত হচ্ছে।

ফুলগাজী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, ভারতীয় পাহাড়ী ঢলের পানিতে প্রায় দেড় শতাধিক পুকুর ও মৎস্য খামার ভেসে গেছে। এ পযন্ত ৪৪ হেক্টর মৎস্যচাষযোগ্য জমি পানিতে তলিয়ে যায়।

পরশুরাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী আরিফুর রহমান বলেন, পানি কমলে ভাঙ্গণ স্থানগুলো চিহ্নিত করে মেরামতের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে চাহিদাপত্র পাঠানো হবে।

ফেনী প্রতিনিধি/নোয়াখালীনিউজ/এসইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published.