৫৯ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য

সোনাগাজী: ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার ৫৯ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দীর্ঘ দিন ধরে প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। শিক্ষা অফিসে ও কর্মকর্তার সংকট। ফলে বিদ্যালয় গুলোর শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি সঠিক মনিটরিংয়ে ও বেগ পেতে হচ্ছে শিক্ষা অফিসকে।

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, ১৯৯৬ সালের পর থেকে দীর্ঘদিন নিয়োগ ও পদোন্নতি না হওয়ায় উপজেলার ১শ ৮টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫৯ টিতে প্রধান শিক্ষক নেই। ভারপ্রাপ্ত দিয়েই চলছে শিক্ষা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম। এছাড়া বিদ্যালয় গুলোতে ৭০ টির অধিক সহকারী শিক্ষকের পদ খালি রয়েছে। অনেক সহকারী শিক্ষক পিটিএ প্রশিক্ষণে থাকায় সেখানেও শূণ্যতা সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও মাদ্রাসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হুমায়ুন কবির নতুন নিয়োগ ও পদোন্নতি জটিলতা নিরসন করে শিক্ষার্থীদের লেখা পড়ার মান উন্নয়নের লক্ষে দ্রুত শূন্য পদ গুলো পূরণ করার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবী জানান।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা ওয়াহিদুর রহমান বলেন, উপজেলার ১শ ৮টি বিদ্যালয়ের মধ্যে ৪টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ নিয়ে আদালতে মামলা ও নতুন জাতীয়করণকৃত ২টি এবং বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় স্থাপিত নতুন আরো ২টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ সৃষ্টি না হওয়ায় উপজেলার ৫৯টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ শূণ্য রয়েছে।

জানতে চাইলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আনজুমান আরা বেগম বলেন, যে ৫৯ টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই সেগুলোতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শিগগিরই শুরু হবে। সরাসরি নিয়োগের পাশাপাশি সহকারী শিক্ষকদের থেকে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতির জন্য গত কিছুদিন আগে ৭৭ জন শিক্ষকের নাম সংশ্লিষ্ট দফতরে পাঠানো হয়েছে।

ফেনী প্রতিনিধি/নোয়াখালীনিউজ/এসইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published.