লক্ষ্মীপুরে হোটেল শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা, আটক ৫

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে মো. রিয়াজ নামের ১৪ বছর বয়সী এক হোটেল শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে একই হোটেলের আরেক শ্রমিক আবিরসহ পাঁচ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পৌর শহরের আলেকজান্ডার বাজারের গ্রামীণ হোটেলে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। নিহত রিয়াজ পৌর শহরের শিক্ষা গ্রামের সফু মাঝির ছেলে।

নিহতের মা পারভীন আক্তার ও বাবা সফু মাঝি জানান, নদী ভাঙ্গা গৃহহীন জেলে পরিবারের সন্তান রিয়াজ। ঘর না থাকায় তারা অস্থায়ীভাবে বসবাস করছেন ছোট ভাইয়ের ঘরে (রিয়াজের চাচার ঘর)। ৫ম শ্রেণির পর পড়ালেখা করা হয়নি রিয়াজের। পরিবারের অভাব মেটাতে তিন বছর আগে স্থানীয় গ্রামীণ হোটেলে কাজ শুরু করে সে।

সোমবার রাতে হোটেলের রান্না ঘরে তার সহকর্মী আবিরের সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আবির ও হোটেল মালিক জাহেরসহ কয়েকজন তাকে মারধর করে। এ সময় রিয়াজ গুরুত্বর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে প্রথমে রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় হাসপাতালে তার মরদেহ ফেলে রেখে তারা পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন স্বজনরা।

প্রতিদিনের মতো রাতে রিয়াজ বাড়ি না ফিরলে স্বজনরা খোঁজ নিতে গিয়ে জানতে পারেন রিয়াজ আর নেই। এ ঘটনার বিচার দাবি করেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গ্রামীণ হোটেলের কর্মচারী রিয়াজকে মারধর করলে সে মারা যায়। এতে পুলিশ অভিযুক্ত আবিরকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হোটেল মালিকের ভাই জগলুসহ আরও চার জনকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

প্রতিনিধি/নোয়াখালীনিউজ/এসইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published.