রামগতিতে আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা

রামগতি: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর স্বীকৃতি উপলক্ষে লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে আনন্দ শোভাযাত্রা, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পঅর্পণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

২৫ নভেম্বর (শনিবার) সকাল ১০ টায় উপজেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচীর সূচনা ঘটে।
এরপর, উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণ থেকে বের হয় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রাটি পৌর আলেকজান্ডার বাজার হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ সন্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।
রামগতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আজগর আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল ওয়াহেদ, বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও বড়খেরী ইউপি চেয়ারম্যান হাসাম মাহমুদ ফেরদৌস, পৌর মেয়র মেজবাহ উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবদুল ওয়াহেদ মুরাদ, চরগাজী ইউপি চেয়ারম্যান তাওহীদুল ইসলাম সুমন, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মেজবাহ উদ্দিন ভিপি হেলাল প্রমূখ।
আলোচনা সভা শেষে হলরুমে প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। এছাড়াও এ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষনের উপর মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের রচনা প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়।
আনন্দ শোভাযাত্রায় মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যাক্তি, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিশু কিশোর, সাংস্কৃতিকর্মী, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন এনজিওর সদস্যরা অংশ নেয়।
এসময় বক্তরা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরী অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিষ্টারে অন্তর্ভূক্তির মাধ্যমে বিশ^ প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করায় আমরা আনন্দিত। জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতি সংস্থা (ইউনিস্কো) বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণকে ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় আমরা ওই সংস্থার নিকট কৃতজ্ঞ।

প্রতিনিধি/নোয়াখালীনিউজ/এসইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published.