হাতিয়ায় আ’লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে ওসি’সহ গুলিবিদ্ধ-৫

হাতিয়া: নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় মিছিলকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪পুলিশ সদস্য’সহ ৫জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ব্রিকফিল্ড বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হচ্ছেন, হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান শিকদার, এস.আই হুমায়ন, এ.এস.আই শফিক, আসিকুল ইসলাম ও পথচারী পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের আব্দুল করিমের ছেলে শরিফ উদ্দিন (২২)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার সন্ধ্যায় পৌরসভার চর কৈলাশ গ্রাম থেকে ইউপি সদস্য ও রবীন্দ্র বাহিনীর প্রধান রবীন্দ্র চন্দ্র দাস এবং তার দুই সহযোগিকে আটক করে পুলিশ। পরে ওইদিন সন্ধ্যায় আটককৃতদের ফাঁসির দাবীতে ওছখালি বাজারে মিছিল করে আওয়ামী লীগ নেতা এড. ছাফ উদ্দিনের নেতাকর্মীরা।

এরসূত্র ধরে বুধবার সন্ধ্যায় ওছখালি বাজারে আটককৃত রবীন্দ্র’এর মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করে তার পক্ষের লোকজন। পরে মিছিলটি ব্রিকফিল্ড এলাকায় পৌঁছলে ছাইফ উদ্দিনের সমর্থকদের সাথে বাকবির্তক ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। এর একপর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটলে এক পথচারী ও চার পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান শিকদার পিপিএম জানান, সংঘর্ষকারীদের ছোঁড়া গুলিতে তিনি’সহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রতিবেদক/এমআরআর/২৭ ডিসেম্বর

Leave a Reply

Your email address will not be published.