কোম্পানীগঞ্জে গৃহবধূর শরীরে আগুন, স্বামী আটক

কোম্পানীগঞ্জ: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভায় মোহছেনা বেগম (৩০) নামের এক গৃহবধুর শরীরে কেরোসিন ঢেলে হত্যার চেষ্টা করেছে তার স্বামী জামাল উদ্দিন। এইঘটনায় স্থানীয় লোকজন জামাল উদ্দিনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। শরীরের ৫০ ভাগ পুড়ে যাওয়ায় গৃহবধূকে ঢামকে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পৌরসভা ৫নং ওয়ার্ড কলেজ গেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত জামাল উদ্দিন উপজেলার চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মো. মোস্তফার ছেলে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধু মোহছেনা জানান, দীর্ঘদিন থেকে তার স্বামী জামাল মাদকাসক্ত হয়ে তাকে মারধর করতো। বুধবার রাতেও তাকে মারধর করার এক পর্যায়ে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুঁটে এসে তাকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে এবং ঘটনাস্থল থেকে জামাল উদ্দিনকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, গৃহবধুর মোহছেনার শরীরের প্রায় ৫০ শতাংশ পুড়ে গেছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মোহছেনার মাদকাসক্ত স্বামীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

প্রতিবেদক/এমআরআর/৪ জানুয়ারি

Leave a Reply

Your email address will not be published.