বেগমগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলায় গুলিবিদ্ধ ২

বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগীতা চলাকালীন সময়ে মাঠে মোটরসাইকেল বহর নিয়ে প্রবেশে বাধা দেয়ার জেরে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানীতে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি হামলা করে এক যুবককে বাড়ি থেকে তুলে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ২ জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মোহন (২৭) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের ভবভদ্রী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, ভব ভদ্রী গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে মো. মোহন (২৭) এবং রুদ্রপুর গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে নাছির আলম (৩৪)। আহতদের উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ২০ জানুয়ারী বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের রুদ্রপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগীতা ও পুরস্কার বিতরণী সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান চলাকালীন সময় স্থানীয় টিটা বাহিনীর লোকজন ৪/৫ টি মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে বিদ্যালয় মাঠে প্রবেশ করতে উদ্যত হয়।

এসময় অনুষ্ঠানের স্বেচ্ছাসেবক রুদ্রপুর গ্রামের দাউদের ছেলে ফাহাদ তাদেরকে বাধা দেন। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ফিরে যান। ওই ঘটনার জের ধরে টিটা বাহিনীর লোকজন শনিবার বিকেলে বেগমগঞ্জের রুদ্রপুর ফাহাদের বাড়িতে অতর্কিত গুলি ও ককটেল বোমা চালিয়ে তাকে জোরপূর্বক তুলে আনার চেষ্টা করে।

ওই সময় পরিবারের লোকজনের চিৎকারে প্রতিবেশী ও গ্রামের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা এলোপাথাড়ি গুলি ও ককটেল বোমা বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। সন্ত্রাসীদের ছোঁড়া গুলিতে মো. মোহন ও নাছির আলম গুলিবিদ্ধ হন।

আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে মোহনের শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রুদ্রপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠান চলাকালীন সময় টিটা বাহিনীর সদস্যরা মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে প্রবেশ করতে বাধা দেয়ার ঘটনার জেরে ফাহাদ নামের এক যুবককে বাড়ি থেকে তুলে আনতে যায় টিটা বাহিনীর সদস্যরা। এতে স্থানীয় লোকজন বাধা দিলে সন্ত্রাসীরা গুলি ছুঁড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.