কোম্পানীগঞ্জে পুলিশের ফাঁদে ৩ ডাকাত, অস্ত্র উদ্ধার

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় পুলিশের পাতানো ফাঁদে আটক হয়েছে ৩ ডাকাত। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি এলজি, একটি পাইফগান, পাঁচ রাউন্ড কার্তুজম, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত দুইটি লোহার কোরাবাড়ি, একটি মানকিক্যাপ ও দুই’শ গ্রাম মোটা সুতা উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৫ মার্চ) দুপুরে আটককৃতদের কারাগারে প্রেরণ করা হয়। আটককৃতরা হচ্ছেন- কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরকার্কড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের আবুল কালামের ছেলে তৈয়ব নবী প্রকাশ মিস্টার (৩০) একই এলাকার আব্দুর সাত্তারের ছেলে মিজানুর রহমান রুবেল (২২) ও ফেনী জেলার গোবিন্দপুর এলাকার কবির আহমদের ছেলে তাজুল ইসলাম (৩২)।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ খবর পেয়ে পুলিশ তাদের সোর্স’এর মাধ্যমে আটককৃত ডাকাত দলের সাথে একত্রিত হয়ে ডাকাতি করবে বলে ওই দলকে খবর পাঠায়। এরউপর ভিত্তি করে একত্রিত হওয়ার উদ্দেশ্যে বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে চরকার্কড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের একটি মাঠে অপেক্ষা করে আটককৃত তিন ডাকাত সদস্য। এসময় প্রথমে ওই মাঠে ছদ্ধবেশে পুলিশের তিনজন সদস্য ডাকাত দলে সাথে একত্রিত হয়।

পরে কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হকের নেতৃত্বে ডাকাত দলকে ধাওয়া করে আটক করে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি এলজি, একটি পাইফগান, পাঁচ রাউন্ড কার্তুজম, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত দুইটি লোহার কোরাবাড়ি, একটি মানকিক্যাপ ও দুই’শ গ্রাম মোটা সুতা উদ্ধার করা হয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে ডাকাতি প্রস্তুতির ঘটনায় একটি ও অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.