উইকিপিডিয়ায় এমপির নাম ভুলভাবে উপস্থাপন

নোয়াখালী নিউজ ডেস্ক: নোয়াখালী-৩ বেগমগঞ্জ আসনের এমপি মামুনুর রশিদ কিরণের নাম ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। শনিবার উইকিপিডিয়ায় ঢুকে দেখা গেছে কিরণের স্থলে খোকন লেখা রয়েছে। তবে নোয়াখালী.গভ.বিডি ও আমার এমপি.কমে ‘মামুনুর রশিদ কিরন’ লেখা হয়েছে।

মামুনুর রশিদ কিরণ গ্লোব গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

১৯৯১ সালে চৌমুহনী পৌরসভার একটি ওয়ার্ডের সেক্রেটারি হওয়ার মাধ্যমে তার রাজনৈতিক নেতৃত্ব শুরু হয়। ১৯৯৩ সালে থানা আওয়ামী লীগের সদস্য হন। ১৯৯৭ সালে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০০৩ সাল থেকে বেগমগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১১ সালে বিপুল ভোটে চৌমুহনী পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে এমপি নোমিনেশন পান।

তার বাবা ছিলেন প্রতিষ্ঠিত আইনজীবী। ১৯৭৩ সালে চট্টগ্রামে পাইকারি ওষুধ ব্যবসা দিয়ে মামুনুর রশিদ কিরণের ব্যবসার হাতেখড়ি। ভাইদের মধ্যে তিনি তৃতীয়। বড় ভাই ছিলেন ব্যাংকার। মেজ ভাই হারুনুর রশিদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ওষুধের ব্যবসা থেকে ১৯৮৫ সালে গ্লোব রিচার্স ল্যাবরেটরির ব্যবসায় নামেন তিন। পরে বেগমগঞ্জ শিল্প নগরীতে ওষুধ তৈরিসহ ওষুধের কাঁচামাল তৈরির মধ্যদিয়ে শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ার প্রক্রিয়া শুরু করেন। ১৯৯০ সালে গ্লোব ড্রাগ নামে একটি প্রতিষ্ঠান তৈরি করে ওই প্রতিষ্ঠানে ওষুধের কাঁচামাল তৈরির কাজ শুরু করেন। পরে ১৯৯৩ সালে নোয়াখালীর উপকূলীয় চরাঞ্চলে ওষুধ শিল্পের পাশাপাশি বিস্তীর্ণ এলাকায় মৎস্যচাষ শুরু করেন। ১৯৯৮ তে বেগমগঞ্জে গ্লোব বিস্কিট এবং ২০০০ সালে গ্লোব সফট ড্রিংক্স তৈরি করলে দেশ-বিদেশে নাম ছড়িয়ে পড়ে। পাশাপাশি মাছের খাদ্য তৈরির শিল্প-কারখানাও গড়ে তোলেন।

জানা গেছে, বড় ভাই হারুনুর রশিদের অনুপ্রেরণায় তার এ অবস্থানে আসা। শিল্পপ্রতিষ্ঠান তৈরি করে তিনি শুধু শ্রমিকের ওপর নির্ভর না করেও নিজের হাতেই কাজ করতেন। শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে বিপুলসংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থান করতে পারায় তিনি নিজেকে গর্বিত মনে করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.