সূর্যগ্রহণকালে খাওয়া-দাওয়া নিষেধ!

নোয়াখালী নিউজ ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন স্থানে লোকজন বলাবলি করছে সূর্যগ্রহণকালে খাওয়া-দাওয়া নিষেধ! এসময় নাকি কিছু খেতে নেই। খেলে বিপদ হবে। আরো অনেক রকম মুখরোচক কথা।

এ বিষয়ে সাংবাদিক প্রবীর শিকদার বলেন, কথিত বিধিনিষেধ আছে। সেটা কেউ মানেন, কেউ মানেন না।

সাংবাদিক প্রভাষ আমিন বলেন, খাওয়া-দাওয়ায় নিষেধ নেই।

সাংবাদিক জুয়েল রাজ বলেন, ছোট বেলায় এরকম কথাই শুনেছি।

সাংবাদিক আজিজুর রহমান অনু বলেন, না করাই ভাল, যদি সূর্য দেখা যায়।

আর মুফতি মাহমুদুল হাসান বলেন, সূর্যগ্রহণকালে খাওয়া-দাওয়াতে কোন নিষেধ নেই।

এদিকে নোয়াখালীর সদর থানার নোয়াখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা দিলারা বেগম রোববার দুপুর থেকেই না খেয়ে আছেন। তিনি জানান, এসমসয় কিছু খাওয়া নিষেধ। শুধু তিনি নন। তার ঘরের পুত্রবধূ জান্নাত বেগমকেও তিনি খেতে দেননি।

দিলারা বেগমের মেয়ে মহিমা আক্তারের বিশ্বাস সূর্যগ্রহণকালে সূর্যের দিকে তাকিয়ে পানি দিয়ে চোখ ধুলে নাকি চোখে দেখতে পাওয়া যায়। তিনি বলেন, সূর্যগ্রহণকালে অনেক আগে তার নানী সূর্যের দিকে তাকান। তখন থেকে তিনি চোখে কম দেখেন।

আর নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার জাহাজমারার বাসিন্দা রিমা আক্তার। তিনি গর্ভবতী। তিনিও দুপুর থেকে না খেয়েই আছেন। তাকেও ভয়ে খেতে দেয়া হচ্ছে না।

রোববার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিট ৫৪ সেকেন্ডে বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। যা শেষ হবে রাত ১১টা ৩৬ মিনিটে।
তবে কেন্দ্রীয় গ্রহণ শুরু হয়েছে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টা ১৬ মিনিট ৬ সেকেন্ডে। শেষ হবে রাত ১০টা ৩০ মিনিট ৫৪ সেকেন্ডে।

এর মধ্যে সর্বোচ্চ গ্রহণ হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৫৩ মিনিট ২৪ সেকেন্ডে। যদিও বাংলাদেশে গ্রহণটি দেখা যাবে না।

বৃহস্পতিবার আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিকে বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

আইএসপিআর আরও জানায়, বাংলাদেশে গ্রহণটি দেখা যাবে না। তবে গ্রহণটির কেন্দ্রীয় গতিপথ হবে ঐদিন চিলির হুয়ান ফার্নান্ডেজ দ্বীপের পশ্চিমে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে।

গ্রহণ শুরু হবে স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ৫০ মিনিট ১৯ সেকেন্ডে। কেন্দ্রীয় গ্রহণ শুরু হবে স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ৪০ মিনিট ৩৪ সেকেন্ডে চিলির ইস্টার দ্বীপের দক্ষিণ-পশ্চিমে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে। সর্বোচ্চ গ্রহণ হবে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৪৮ মিনিট ৩৭ সেকেন্ডে।

যুক্তরাজ্যের ত্রিস্তান দ্য কুনহা দ্বীপের পশ্চিমে দক্ষিণ আটলান্টিক মহাসাগরে। যার সর্বোচ্চ মাত্রা হবে ০.৯৯২ এবং স্থায়িত্বকাল হবে ১ মিনিট ২২ সেকেন্ড। কেন্দ্রীয় গ্রহণ শেষ হবে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ১৯ মিনিট ২২ সেকেন্ডে কঙ্গোর মাওয়াদিঙ্গশু শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং গ্রহণটি শেষ হবে গ্যাবনের এনয়ুগা শহরের উত্তরে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ১৩ মিনিট ২১ সেকেন্ডে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.