ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর

কমলনগর: লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা চরমার্টিন গ্রামে অনৈতিক কাজের অভিযোগ এনে প্রবাসীর স্ত্রীকে (৩০) মারধর ও সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালককে বেঁধে নির্যাতন করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করে নির্যাতিতদের পরিবার। রোববার (৩০ এপ্রিল) সকালে লক্ষ্মীপুরের স্থানীয় একটি পত্রিকা কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে নির্যাতিত প্রবাসীর স্ত্রী বলেন, আমার স্বামী প্রবাসে (ওমান) থাকায় উত্তর চরমার্টিন গ্রামের কয়েক বখাটে আমাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল এবং বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপ-প্রচার ও ষড়যন্ত্র করে আসছিল। গত ২৩ এপ্রিল সকালে প্রতিবেশি সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক সালাহউদ্দিকে দিয়ে মোবাইল মেরামত করতে শহরে পাঠাই। সন্ধ্যায় মোবাইল নিয়ে আসলে চরমার্টিন ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল মান্নানসহ তার লোকজন আমার বাড়িতে এসে অনৈতিক কাজের নাটক সাজিয়ে চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে আমাকে মারধর ও অটোরিকশা চালককে বেঁধে নির্যাতন করে। এ ঘটনায় আমার বাবা মাহমুদ উল্যাহ বাদি হয়ে গত বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ১০ জনকে আসামী করে লক্ষ্মীপুর জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন।

সংবাদ সম্মেলনে নির্যাতিত অটোরিকশা চালক সালাউদ্দিনের স্ত্রী স্বপ্না আক্তার বলেন, আমার স্বামী দীর্ঘদিন থেকে ওই পরিবারসহ আশেপাশের প্রতিবেশিদের অটোরিকশায় বহন করেন। ওইদিন সন্ধ্যায় একটি মোবাইল মেরামত করে প্রবাসীর বাড়িতে গেলে পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মেম্বার ও তার লোকজন আমার স্বামীকে বেঁধে নির্যাতন করে। আমি এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি করছি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রবাসীর স্ত্রীর মা রোকসানা আক্তার, নির্যাতিত সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক সালাহউদ্দিনসহ তাদের পরিবারের সদস্যরা।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, এ ঘটনায় আদালতে মামলা দায়েরের পর তদন্তের জন্য সমাজসেবা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে তিনি শুনেছেন। পরবর্তীতে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রতিনিধি/নোয়াখালীনিউজ/এসইউ/৩০এপ্রিল

Leave a Reply

Your email address will not be published.